Guide to invest in e-commerce business 2020

Guide to invest in e-commerce business 2020

এটা মূলত কিভাবে কাজ করবে এখানে শুরুতে আমাদের যেটা প্রয়োজন নরমাল এটা আমাদের প্রথম ভিডিওটা দিয়েছিলাম যে কি কি প্রয়োজন ডেক্সটপ কম্পিউটার যে আপনার ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ এখন আপনার যদি না থেকে থাকে ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ এবং আপনি যদি চিন্তা করে থাকেন যে না আপনি শুধুমাত্র ই-কমার্স বিজনেস করার জন্যই আপনি কম্পিউটার আপনি কিনবেন সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনি এরকম একটা বাজে নিয়ে নিবেন  বাজেট মেনে নিবেন

Guide to invest in e-commerce business 2020
Guide to invest in e-commerce business 2020

 e-commerce business 2020


বিজনেস এর ক্ষেত্রে এটা কাজ করতে ওয়েবসাইটে মেন্টেন করতে হবে অনলাইন এই কাজের জন্য খুব প্রয়োজন পড়ে ল্যাপটপ এর ক্ষেত্রে আপনি খুব ভালো পারবেনা ক্ষেত্রে যদি থাকে যদি আপনারা কনফিগারেশন আপনি যদি ল্যাপটপে টেক্সট থাকে তাহলে বল আপনার যদি ল্যাপটপ কোর আই সেভেন থাকে এটা আরো অনেক ভালো ডেক্সটপ যদি আপনার করে i3 করে i5 এরকম যদি থাকে তাহলে খুব ভালো এটা হচ্ছে বিষয় আপনি যদি না থেকে থাকে তাহলে এটা আপনাকে নিতে হচ্ছে এক্ষেত্রে আপনি কত টাকা বাজেটের ভিতর আপনি নিবেন সেটা হচ্ছে আপনার ইনভেস্ট আর আপনার যদি থেকে থাকে ল্যাপটপটা তাহলে তো ভালো কথা তাহলে সেক্ষেত্রে আপনার প্রয়োজন পড়ছে না এবার আপনি আপনি কত টাকার ভিতরে ল্যাপটপ কিনতে যাচ্ছেন আপনার কর্মচারী কর্মচারীর সংখ্যা আছে মার্কেটিং এর জন্য আপনাকে নিতে হচ্ছে আপনি নিতে পারেন এবং হোস্টিং এবং হোস্টিং হোস্টিং তৈরি করবেন আপনি কাজ করতে পারেন এবং সেক্ষেত্রে আপনি আমাদের কাছে নিতে পারেন আমরা টু জিবি হোস্টিং এর সাথে 1 বছর জন্য 2000 টাকা আমরা প্রোভাইড করছি আপনি যদি আপনি যদি আপনার আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন ওয়েবসাইটে আমরাই কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করে দিচ্ছি আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে আপনি যেকোন জায়গা থেকে যদি করতে চান তাহলে আপনি অল্প টাকায় আপনি করতে পারছেন আর আপনি যদি চিন্তা করেন না আপনি পিএইচপি লারাভেল দিয়ে সরাসরি কোডিং করার মাধ্যমে আপনি করবেন অর্থাৎ আপনি কিন্তু একটি করার জন্য আপনি চাইলে কোটি টাকা খরচ করতে পারেন আপনি কেমন ফাংশন ইউজ করতে যাচ্ছেন আপনি যদি চিন্তা করেছেন আপনার এবং সেখান থেকে আপনি পেমেন্ট গেটওয় পেমেন্ট ব্যাংক অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন একটা বিষয়ের উপর নির্ভর করবে আমি বললাম আপনি কি করতে চাচ্ছেন এটা হচ্ছে তো আপনারটা কেমন আপনার যদি হাজার টাকা বাজেট থাকে তাহলে কিন্তু একটা বিষয় 10000 টাকা থাকলে একটা বিষয় অথবা আপনার যদি 1 লক্ষ 25 লক্ষ দশ লক্ষ টাকা যদি থাকে তাহলে সেরকম ভাবে করে নিবেন সিম্পল বিষয় এবার আপনি চিন্তা করেন আপনি যদি চান যে আপনি ঝিরি বৃষ্টিতে প্রোডাক্ট আপনি কালেকশন করতে পারে তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনার কেমন অফিস অফ নিতে যাচ্ছেন এবার আপনি যদি চিন্তা করেন যে আপনি একদম কমার্শিয়াল স্পেস আপনাকে অফিস নিবেন আপনার এখানে পাঁচজন বাদনওয়ার এখানে সেখানে আপনার কাজ করবে সে ক্ষেত্রে আপনি কিন্তু সেরকম ভাবে আপনার অফিসটা আপনার খরচ হবে যেমন কোনো কোনো ক্ষেত্রে খরচ হয় কিন্তু আপনি যদি চান না আপনি করবেন আপনি অফিস পরিচালনা করবেন আপনি কাজ করবেন আপনি চাইলে আপনার বাসা থেকে কিন্তু আপনি কিন্তু এবার চিন্তা করার জন্য আপনারা বুঝতে পারছেন এবার আপনি যদি না জেনে থাকেন আপনি যদি চিন্তা করেন আপনি মার্কেটিংয়ের ক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং মার্কেটিং মার্কেটিং মার্কেটিং করে তাহলে আপনি কত টাকা করে পোস্ট করছেন সে অনুযায়ী আপনার খরচ হবে আবার আপনি যদি চিন্তা করেন না আপনি নিজে নিজে আপনি স্টাডি করবেন ইউটিউব দেখে গুগল থেকে আমি নিজে আপনি স্টাডি করবেন আপনার সময় যাবে বাট আপনার টাকাটা কিন্তু আপনার খরচ হচ্ছে না আপনি যদি নেন আপনার বাজেটের কিন্তু নিতে পারবে না থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে কি আপনি একাই আপনাকে আপনার দিতে হচ্ছে না ইনভেস্ট করে কিন্তু এটা কাজ আপনি করে নিতে পারেন হচ্ছে প্রোডাক্ট ডেলিভারি ডেলিভারি করবেন আপনার কম্পিউটার আছে আপনার কাছে আপনার প্রোডাক্ট আছে আপনার মার্কেটিং হচ্ছে মার্কেটিং এর পর অবশ্য আপনার সেল হবে তারপর আপনি প্রোডাক্ট ডেলিভারি করবেন প্রোডাক্ট ডেলিভারি করবেন আপনি কিভাবে আপনি যদি চান যে প্রোডাক্ট ডেলিভারি করার জন্য পরিবহন ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম থাকবে আপনি যদি চান যে মোটরসাইকেল কয়েকটা দেওয়ার জন্য যে আপনি আপনার আশেপাশে আপনি মোটরসাইকেল এর মাধ্যমে আপনাদেরকে পৌঁছে দিবেন এটা যদি করতে চান তাহলে কিন্তু আপনি মোটরসাইকেল  এরকম করতে পারেন সার্ভিস গুলো আছে সেগুলো মাধ্যমে কিন্তু আপনি আপনার প্রোডাক্ট টা পাঠিয়ে দিতে পারেন এবং আপনি কতটুকু আপনি চাইলে আপনি টাকা থাকলে আপনি আপনি করে নিতে পারেন অর্ডার আসলো এটা খুব কাছে এক ঘন্টার ডিসটেন্স তো আপনার নিজস্ব যদি পরিবহন সিস্টেম থাকে ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম যদি থাকে তাহলে সেটা কি ইউজ করে আপনি সাথে সাথে কিন্তু সেন্ড করতে পারবেন না তাহলে আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হচ্ছে অন্যান্য সার্ভিসের মাধ্যমে আপনার প্রোডাক্ট ডেলিভারি করতে হবে আপনি যখন কাস্টমারকে দিতে পারে বা যে কোন একটা প্রবলেম হতে পারে ভুল হয়ে যেতে পারে সেক্ষেত্রে আপনি যদি চান যে আপনার পরবর্তী স্ট্রং করার জন্য সাপোর্ট সিস্টেম করার জন্য আপনি 2 3 জন লোক নিয়োগ করবেন তাদের জন্য আপনাকে সেই আপনাকে কিন্তু আপনাকে হবে শুরু করতে গেলে আপনার যে কোন কোন বিষয় খেল ইনভেস্ট এখানে প্রয়োজন পড়তে পারে মিনমিন পয়েন্টগুলো ছিল আমি একটু চেষ্টা করেছি মিনমিন পয়েন্টগুলা কি আপনাদের সামনে প্রেজেন্ট করার জন্য আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন 


আশা করি বন্ধুরা এই সম্পর্কে আপনাদের ধারণা হয়ে গেছে। আপনাদের বন্ধুদের সাথে সিয়ার করতে বুলবেন আজকে এই পর্যন্ত।

Post a comment

0 Comments