Top reasons to start an eCommerce business 2020

Top reasons to start an eCommerce business 2020

এটিকে ঘিরে গড়ে উঠছে নানা ধরনের ব্যবসা বাণিজ্য উন্নত দেশগুলোর পাশাপাশি বাংলাদেশ ও ভারতের ই-কমার্সের ব্যাপক প্রসার ঘটছে এই মার্কেটের পরিসংখ্যান বলছে 2019 সালের শেষ নাগাদ বিশ্বব্যাপী বাজার 20.7 বেড়ে দাঁড়াবে 3.5 বিলিয়ন ডলারে 2021 সাল নাগাদ হবে 5 ট্রিলিয়ন ডলার এবং দ্বিতীয় অবস্থানে থাকবে আমেরিকা ফাস্ট 10 নম্বর অবস্থানে রয়েছে ভারত যেখানে শুধুমাত্র 2940 বিলিয়ন ডলারের লেনদেন হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে আমাদের দেশেও বিগত কয়েক বছরে ব্যাপক প্রসার ঘটেছে প্রতিনিয়তই নতুন নতুন পণ্য সেবা নিয়ে যাত্রা শুরু করছে অনেক প্রতিষ্ঠান

Top reasons to start an eCommerce business 2020
eCommerce business 2020

Top reasons to start an eCommerce business

পার্শ্ববর্তী দেশগুলোর বিবেচনা করে সহজেই ধারণা করা যাচ্ছে বাংলাদেশে আগামী কয়েক বছরে একটি বাজার তৈরি হতে যাচ্ছে এর মাধ্যমে ব্যবসায়িক কার্যক্রম শুরু করতে প্রয়োজন তার সবই অনলাইনে পাওয়া যায় আর এই সহজলভ্য তার কারণে যে কেউ তার উদ্যোগে শুরু করতে পারছে বিশেষজ্ঞরা ব্যবসায়িক কার্যক্রম শুরু করা উচিত বলে মনে করেন আজকে তুলে ধরা হলো বিনিয়োগ করতে হয় তার থেকে কম প্রয়োজন হয় প্রয়োজন নেই যার জন্য নানা ধরনের বিনিয়োগের প্রয়োজন পড়ে উদ্যোক্তাদের জন্য অনেক বড় একটি বাধা কিন্তু এক্ষেত্রে একটি ওয়েবসাইট ফেসবুক পেজ এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে যেকোনো স্থান থেকেই নিজের উৎপাদন করা পণ্য বিক্রয় করা যায় যার মাধ্যমে স্বল্প পুঁজির ব্যবসা পরিচালনা করতে পারে পরবর্তীকালে 24 ঘন্টা কার্যক্রম পরিচালনার সুযোগ সাধারণত বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই উদ্যোক্তাদের প্রতিদিন 10 থেকে 14 ঘণ্টা ব্যবসায় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার সুযোগ থাকে তার থেকে বেশি সময় ধরে কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারেনা কিন্তু এক্ষেত্রে 24 ঘন্টায় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা যায় স্মার্টফোন এবং পাশাপাশি এড়াতে অনেকেই ইন্টারনেটে একটিভ থাকে তাই অনলাইনে সঠিকভাবে প্রচার প্রচারণার মাধ্যমে দ্বীনের পাশাপাশি ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দেয়ার মাধ্যমে অর্ডার করা যেতে পারে এবং পরবর্তীতে তাদের কাছে ডেলিভারি করে দেয়া যেতে পারে যেকোনো প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি বড় সুযোগ নেক্সট বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় একটি প্রতিষ্ঠানের ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড দেশজুড়ে বিস্তার করতে চাইলে বিভিন্ন অঞ্চলের শাখা-প্রশাখা খুলতে হয় যার জন্য প্রয়োজন পর্যাপ্ত জনবল ও বিপুল পরিমাণ বিনিয়োগ উন্নত উৎপাদন করা থাকা সত্ত্বেও অনেকেই তাদের প্রতিষ্ঠানকে দেশব্যাপী বিস্তৃত করতে পারে না কিসের মাধ্যমে বিষয়টি এখন একদম সহজ হয়ে গিয়েছে 24 ঘন্টাই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দেয়ার মাধ্যমে শুরু থেকে দেশব্যাপী প্রতিষ্ঠান প্রসার ঘটানো সম্ভব ব্যবসা শুরু করার কারণ হতে পারে পরবর্তীতে শুরু করাটা সহজ একটি ব্যবসায় উদ্যোগ গ্রহণ করতে নানা ধরনের প্রয়োজন হয় অনেকের মধ্যে থাকা সঠিক তথ্য ও প্রয়োজনীয় রিসোর্স শুরু করা হয়ে ওঠে না ব্যবসার ক্ষেত্রে ন্যূনতম যে বিষয়গুলোর প্রয়োজন তা হচ্ছে এই ব্যবসাটি সম্পর্কে একটি স্পষ্ট ধারণা থাকা একটি ওয়েবসাইট যেখান থেকে ক্রেতারা পছন্দের পণ্য অর্ডার করতে পারবে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমূহ ডিজিটাল মার্কেটিং এর নূন্যতম ধারনা কি তেমন বড় কোনো বাধা নয় আমাদের এই চ্যানেলে পরিপূর্ণ প্রকাশ করা রয়েছে পাশাপাশি ওয়েবসাইট কিভাবে নিজে নিজেই তৈরি করা যায় একাধিক পূর্ণাঙ্গ ভিডিও রয়েছে এছাড়াও আরো অনেক ইউটিউব চ্যানেল থেকে উল্লেখিত বিষয়গুলোর পাশাপাশি অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য জেনে নেয়া যেতে পারে তথ্য তাদেরকে পদ্ধতিতে ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড শুরু করাটা অনেকাংশে সহজ করে দিয়েছে নেক্সট অতিরিক্ত উপার্জনের উৎস ব্যবসায়িক উদ্যোগ গ্রহণ করার অন্যতম একটি কারণ হতে পারে অতিরিক্ত উপার্জন অনেকের কাছে বর্তমান কাজের পাশাপাশি অতিরিক্ত সময় থাকে এছাড়া অতিরিক্ত আর্থিক সাপোর্টের প্রয়োজন হতে পারে যে কারো জন্য অতিরিক্ত একটি সম্পূর্ণ নিজের হবে স্বাধীনভাবে কাজ করা যেতে পারে সবার থেকে ভিন্ন কিছু করার স্বপ্ন আর সবার থেকে ভিন্ন কিছু করার স্বপ্ন রয়েছে তাদের জন্য এক হতে পারে একটি দারুণ সুযোগ অনেকেই ইন্টারনেটে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করছে ইন্টারনেট টেকনোলজি কে ব্যবহার করে নিজের স্বপ্ন বাস্তবায়নের কাজ করা যেতে পারে এই পদ্ধতিতে ব্যবসায় উদ্যোগ গ্রহণের কিছু উল্লেখযোগ্য কারণ তবে শেষ করার পূর্বে চলুন কিছু টিপস জেনে নেয়া যাক কোন সিলেকশন ব্যবসাটি শুরু করার জন্য সর্বপ্রথম যে বিষয়টি প্রয়োজন তা হচ্ছে পণ্য বাছাই করা কি ধরনের উদ্যোগ শুরু করা যেতে পারে সেটি নির্ধারণ করতে হবে বিষয়টিকে একটি উদাহরণ দেয়া যেতে পারে যেমন গত এক সপ্তাহে প্রতিদিন আপনি কি কি পণ্য ব্যবহার করেছেন পাশাপাশি আপনার পরিবার-পরিজন বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজন প্রতিনিয়ত কি কি পণ্য ব্যবহার করছে একটু মনোযোগ দিয়ে লক্ষ্য করলে দেখা যাবে দৈনন্দিন জীবনে নানা ধরনের পণ্য ব্যবহার করা হচ্ছে শুধুমাত্র আপনি আপনার মত মানুষ গুলো ব্যবহার করছে যা কোনো প্রতিষ্ঠান আপনার কাছে বিক্রি করে আয় করছে সেগুলো থেকে আপনার পছন্দ মত কোন এক বা একাধিক ক্যাটাগরির পন্য নিয়ে ব্যবসা শুরু করা যেতে পারে সেই সমস্ত পণ্য বা সেবা দিয়ে শুরু করুন যারা অলরেডি প্রতিনিয়ত অন্যদের সাহায্য নিন একটি উদ্যোগের জন্য তাদের সাপোর্ট দেয়া প্রচার-প্রচারণা করা একাউন্টিং অভ্যন্তরীন বিভিন্ন বিষয় সঠিকভাবে ব্যবস্থাপনা করা ইত্যাদি এই সমস্ত কাজ করা সম্ভব হয়ে ওঠেনা আশেপাশের মানুষদের থেকে সাহায্য নেয়া যেতে পারে যেমন পরিবারের কেউ ক্লাসমেট ইত্যাদি এবং সবাই একসাথে মিলে বিভিন্ন ডিপার্টমেন্ট গুলো পরিচালনা করা যেতে পারে আজ শুরু করুন অনেকেই শুধুমাত্র পর্যন্ত থেকে যায় ব্যর্থ হবার সময় নষ্ট না করে বরং শুরু করে দিতে হবে এবং কাজ করতে করতে আরো অন্যান্য বিষয়গুলো শিখে যেতে হবে সর্বশেষ ব্যবসায় উদ্যোগ শুরু করার জন্য কোন কোন বিষয় গুলো প্রয়োজন হতে পারে সেটা বলে দিচ্ছি প্রথমেই কি ধরনের পণ্য বা সেবা নিয়ে উক্তি সেটা বাছাই করতে হবে একটি ওয়েবসাইট ফেসবুক ইউটিউব চ্যানেল এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া পেজগুলো ক্রিয়েট করে ফেলতে হবে এর মাধ্যমে ক্রেতাদের কাছ থেকে নেয়া হবে সেটি সিলেক্ট করতে হবে যেমন সেটা হতে পারে বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট যেটা মূলত ব্যবসায়ীদের জন্য সাধারণত হয়ে থাকে এটা সাধারন ইউজারদের জন্য তার পাশাপাশি অন্য কিভাবে ডেলিভারি করা হবে তাদের কাছে সেই বিষয়টিও খোঁজখবর নিতে হবে সেটা হতে পারে এস এ পরিবহন সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস সার্ভিস বর্তমানে রয়েছে প্রতিষ্ঠানগুলোকে সহযোগিতা করে থাকে পণ্য ডেলিভারি করতে ডুয়েল কারেন্সি কার্ড প্রচারণা করতে গেলে পেমেন্ট করতে হয় প্রায় প্রতিটি ব্যাংক ক্রেডিট কার্ড দিয়ে থাকে ম্যানেজ করতে পারলে অনলাইন প্রচার প্রচারণা করতে অনেক সহজ হয়ে যাবে অর্গানিক মার্কেটিং এর কৌশল হবে তাদের কাছে পৌঁছে দেয়া যায় অর্থ খরচ না করে তাদের কাছে পৌঁছে দেয়া সম্ভব সেগুলো ব্যবহার করতে হয় সেগুলো ধীরে ধীরে সে থাকতে হবে এতে প্রমোশনের কমে যাবে এবং অংশের পরিমাণ বেড়ে যাবে আজকে পর্যন্ত 

আশা করি বন্ধুরা ইকমার্স বিসনেস সম্পর্কে আপনাদের ধারণা হয়ে গেছে। আপনাদের বন্ধুদের সাথে সিয়ার করতে বুলবেন আজকে এই পর্যন্ত।

Post a comment

0 Comments